16 C
Dhaka
শনিবার, জানুয়ারি ১৬, ২০২১

অনলাইন টিভি

Bangladesh
526,485
কোভিড-১৯ সর্বমোট আক্রান্ত
Updated on January 16, 2021 9:11 AM
Home গণ অর্থনীতি খাদ্যমূল্যের উর্ধগতিতে ওয়ার্কার্স পার্টির উদ্বেগ প্রকাশ

খাদ্যমূল্যের উর্ধগতিতে ওয়ার্কার্স পার্টির উদ্বেগ প্রকাশ

নতুন কথা প্রতিবেদন \ খাদ্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি। দলটির দু’দিনব্যাপি পলিটব্যুরোর সভায় গৃহিত প্রস্তাবে এই উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়।

১০ ও ১১ অক্টোবরঅনুষ্ঠিত পলিটব্যুরোর ভার্চুয়াল সভায় দেশের চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি পরিস্থিতির পর্যালোচনা করে বলা হয়, দেশের খাদ্য উৎপাদন প্রয়োজনের তুলনায় উদ্বৃত্ত হওয়ার পরও চালের এই মূল্যবৃদ্ধি কেবল অস্বাভাবিকই নয়, পরিকল্পিত ও উদ্দেশ্যমূলক।

পলিটব্যুরোর নেতারা বলেন, খাদ্যমন্ত্রণালয় মিল গেটে চালের মূল্য নির্ধারণ করে দেওয়ার পরও তা মানা হচ্ছে না। ধানের মূল্যবৃদ্ধির অজুহাতে মিলাররা চালের দাম বাড়িয়েই চলেছে। অথচ বছরের এই সময়ে কৃষকের কাছে কোনো ধান নাই। যদি ধান থেকে থাকে তবে সেটা মজুতদারের কাছে রয়েছে এবং দাম বাড়ার আশায় চাল থাকার পরও তা বাজারে ছাড়া হচ্ছে না। এদিকে করোনার ফলে আয় কমে যাওয়ায় মানুষের পক্ষে অতিরিক্ত মূল্য দিয়ে চাল কেনাও সম্ভব হচ্ছে না। ফলে তারা চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য কেনা কমিয়ে দিতে বাধ্য হচ্ছে।

পলিটব্যুরোর ওই প্রস্তাবে বলা হয়, অতীতে বৃটিশ, পাকিস্তান ও বাংলাদেশেও দেখা গেছে চালসহ খাদ্যদ্রব্যের অপর্যাপ্ততা নয়, এর ব্যবস্থাপনার ব্যর্থতায় মজুতদারি ও বাজার সিন্ডিকেটের কারণে মূল্যবৃদ্ধি ঘটেছে।আর দুর্ভিক্ষের মুখে পতিত হয়েছেন সাধারণ মানুষ।

নেতারা বলেন, এবারও সরকার কর্তৃক কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া না হলে আমন ওঠার আগেই দেশের মানুষকে খাদ্য সঙ্কটের মুখে পড়তে হবে। পলিটব্যুরোর প্রস্তাবে বলা হয়, ওয়ার্কার্স পার্টি এই পরিস্থিতি বিবেচনা করে গত ২ অক্টোবর সারা দেশে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে খাদ্যমন্ত্রী মহোদয়ের কাছে স্মারকলিপি পেশ করে। কিন্তু সরকার তা বিবেচনায় নিয়েছে বলে মনে হয় না। এদিকে চাতাল মালিকসহ বাজার সিন্ডিকেট বরং আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এই অবস্থায় পলিটব্যুরোর পক্ষ থেকে ভবিষ্যতে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য পার্টির সকল ইউনিটকে প্রস্তুত থাকার আহŸান জানানো হয়েছে।

কমরেড রাশেদ খান মেননের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পলিটব্যুরোর সভায় দেশের সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে পর্যালোচনা রিপোর্ট উত্থাপন করেন পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা। আলোচনায় অংশ নেন পলিটব্যুরোর সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিক, ড. সুশান্ত দাস, মাহমুদুল হাসান মানিক, নূর আহমেদ বকুল, কামরূল আহসান, অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম হক্কানী, এনামুল হক এমরান ও অধ্যাপক নজরুল হক নীলু প্রমুখ।

Most Popular

Recent Comments