শুক্রবার,১২,এপ্রিল,২০২৪
36 C
Dhaka
শুক্রবার, এপ্রিল ১২, ২০২৪
Homeজাতীয়ভিয়েতনামের জাতীয় পরিষদের প্রেসিডেন্ট ভন ডিন হিউ এর সঙ্গে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির...

ভিয়েতনামের জাতীয় পরিষদের প্রেসিডেন্ট ভন ডিন হিউ এর সঙ্গে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির প্রতিনিধি দলের বৈঠক

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, বাংলাদেশ রাষ্ট্রীয় সফররত সোশিয়ালিস্ট রিপাবলিক অব ভিয়েতনামের  জাতীয় পরিষদের প্রেসিডেন্ট ও ভিয়েতনাম কমিউনিস্ট পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য কমরেড ভন ডিন হিউ এর সঙ্গে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেননের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল সাক্ষাৎ করেন। প্রতিনিধি দলে ছিলেন পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য কমরেড অধ্যাপক ড. সুশান্ত দাস, কমরেড মোস্তফা লুৎফুল্লাহ এম পি ও কমরেড এনামুল হক এমরান।

কমরেড ভন ডিন হিউ স্বাগত বক্তব্যে বলেন, ভিয়েতনামের জনগণের সংগে বাংলাদেশের জনগণের ভাতৃত্ব ও সৌহার্দ্য ঐতিহাসিক। তিনি বলেন, ভিয়েতনামের জনগণের সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে দীর্ঘ সংগ্রামে বাংলাদেশের জনগণের সমর্থন সব সময়েই আমাদের সাহস যুগিয়েছে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধেও ভিয়েতনামের জনগণের সমর্থন ছিল অটুট। তিনি বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সংগে ভিয়েতনাম কমিউনিস্ট পার্টির ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশের শ্রমজীবি মানুষের লড়াই এবং জনগ্ণের সকল প্রগতিশীল আন্দোলনে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির ভূমিকার জন্য ভিয়েতনাম কমিউনিস্ট পার্টির সমর্থন রয়েছে। তিনি এই ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। বাংলাদেশের জনগণের সংগে ভিয়েতনাম জনগণের বন্ধুত্ব অটুট থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

কমরেড রাশেদ খান মেনন ভিয়েতনাম জাতীয় পরিষদের প্রেসিডেন্ট কমরেড ভন ডিন হিউ ও তার সংগে সফররত সকল সম্মানিত প্রতিনিধিদের বাংলাদেশ সফরের জন্য বাংলাদেশের জনগণ ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা জানান। তিনি বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সংগে ভিয়েতনাম কমিউনিস্ট পার্টির ঐতিহাসিক বন্ধুত্বের উল্লেখ করে বলেন, ভিয়েতনাম জনগণের সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী রক্তক্ষয়ী লড়াই এবং এদেশের জনগণ ও প্রগতিশীল পার্টিগুলির লড়াই ছিল পরস্পরের পরিপূরক। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ছিল সেই লড়াইএর অংশ। তিনি বর্তমান বিশ্ব  পুঁজিবাদের নয়া-উদারনীতিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইএ দুই দেশের জনগণ ও দুই ভ্রাতৃপ্রতীম পার্টি  একই সংগে সংগ্রাম অব্যাহত রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি  দুই দেশের তরুণ প্রজন্মের মধ্যে দুই দেশের জনগণের দীর্ঘ লড়াই সংগ্রামের ইতিহাসের অভিজ্ঞতা বিনিময়ের উপর জোর দেন। জবাবে কমরেড ভন ডিন হিউ দু দেশের তরুণ প্রজন্মের মধ্যে আরো দৃঢ় সম্পর্ক গড়ে তোলার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সর্বশেষ