বুধবার,১৭,এপ্রিল,২০২৪
28 C
Dhaka
বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
Homeঅনুসন্ধিৎসাস্বাস্থ্যস্বাস্থ্যখাতে ওষুধসহ যেসব চিকিৎসা সামগ্রীর দাম কমেছে

স্বাস্থ্যখাতে ওষুধসহ যেসব চিকিৎসা সামগ্রীর দাম কমেছে

ঢাকা: দেশে ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেটে নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ শনাক্তকরণে প্রয়োজনীয় কিট, পিপিই ও ভ্যাকসিন আমদানিতে কর অব্যাহতি বহাল রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে। একইসঙ্গে ক্যান্সারের ওষুধ উৎপাদনের কাঁচামালের শুল্ক ছাড় অব্যাহত রাখার প্রস্তাবনাও জানানো হয়েছে। এছাড়াও কিডনি রোগীদের ডায়ালাইসিস সেবা, হৃদযন্ত্রে ত্রুটিসহ জন্ম নেওয়া শিশুদের হৃদরোগের চিকিৎসা সেবা, অটিজম সেবাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে কর অব্যাহতি ও শুল্ক প্রত্যাহারের প্রস্তাবনা রাখা হয়েছে বাজেটে।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) জাতীয় সংসদে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এ সময় সংসদে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাস্থ্যখাতে যে সব সেবায় দাম কমছেঃ

অটিজম সেবা: এ সেবার ওপর ভ্যাট অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। মেডিটেশন সেবার ওপর ভ্যাট অব্যাহতি এক বছরের জন্য বাড়ানো হয়েছে।

মানসিক স্বাস্থ্যে মেডিটেশন সেবা: মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য মেডিটেশন সেবার ওপর ভ্যাট অব্যাহতি আরও এক বছরের জন্য বাড়ানোর প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে বাজেটে।

ডায়ালাইসিসের ব্লাড টিউবিং সেট: ডায়ালাইসিসের ব্লাড টিউবিং সেটের দাম কমতে পারে। প্রস্তাবিত বাজেটে ডায়ালাইসিস সেবায় ব্যবহার করা ব্লাড টিউবিং সেটের আমদানি শুল্ক কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

ইমপ্লান্টেবল অক্লুডার: হৃদযন্ত্রে ত্রুটিসহ জন্ম নেওয়া শিশুর চিকিৎসায় ব্যবহৃত ইমপ্লান্টেবল অক্লুডারের দাম কমতে পারে। কারণ এর আমদানি শুল্ক প্রত্যাহারের প্রস্তাব করা হয়েছে।

করোনার কিট: দেশে নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ শনাক্তকরণের জন্য নমুনা পরীক্ষায় যে কিট ব্যবহার করা হয় তা আমদানিতে কর অব্যাহতি সুবিধা বহাল রাখার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে ২০২১-২০২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে।

নিরাপত্তা সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই): চিকিৎসকদের নিরাপত্তা সুরক্ষা সামগ্রীর (পিপিই) ভ্যাট অব্যাহতির সুবিধা বহাল রাখার প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে বাজেটে।

ভ্যাকসিন: দেশে নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ভ্যাকসিন আমদানি, উৎপাদন ও ব্যবসায়ী পর্যায়ে ভ্যাট অব্যাহতির সুবিধা বহাল রাখার প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে প্রস্তাবিত বাজেটে।

ক্যান্সারের ওষুধ: মরণঘাতী ক্যান্সারের ওষুধ উৎপাদনের কাঁচামালে আবার শুল্ক ছাড় দেওয়ার প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে বাজেটে। এতে ক্যান্সারের ওষুধ উৎপাদনে ব্যয় কমতে পারে। একইসঙ্গে ওষুধ শিল্পের আরও কিছু কাঁচামালে শুল্ক ছাড় দেওয়ার প্রস্তাবনার বিষয়েও জানানো হয়েছে।

মেডিকেল ডিভাইস: বেশ কিছু মেডিকেল যন্ত্রাংশ উৎপাদনে উপকরণ আমদানিতে রেয়াতি সুবিধা দেওয়া হয়েছে।

স্যানিটারি ন্যাপকিন: ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেটে দেশে উৎপাদিত ন্যাপকিনের সমুদয় মূল্য সংযোজন কর (মূসক/ভ্যাট) অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি কাঁচামাল আমদানিতে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা দুই বছরের জন্য বাড়ানো হয়েছে। এজন্য দাম কমতে পারে স্যানিটারি ন্যাপকিনের।

শৌচাগারের প্যান: গ্রামের মানুষের স্যানিটেশন সুবিধা আরও সুলভ করার লক্ষ্যে স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত ‘লং প্যান’ এর উপর থেকে ১০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহার করার প্রস্তাবনার বিষয়ে জানানো হয়েছে বাজেটে।

এর আগে দুপুরে ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। জাতীয় সংসদ ভবনের মন্ত্রিসভা কক্ষে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠকে প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

এরপর বিকেল ৩টায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জাতীয় সংসদে ২০২১-২২ অর্থবছরের জাতীয় বাজেটে পেশ করেন।

সর্বশেষ