29 C
Dhaka
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

অনলাইন টিভি

Bangladesh
2,024,489
কোভিড-১৯ সর্বমোট আক্রান্ত
Updated on September 29, 2022 10:37 PM
Homeজাতীয়গরীব মানুষ বাঁচাতে ন্যায্যমূল্যে পূর্ণরেশনিং ব্যবস্থা চালু কর-ওয়ার্কার্স পার্টি

গরীব মানুষ বাঁচাতে ন্যায্যমূল্যে পূর্ণরেশনিং ব্যবস্থা চালু কর-ওয়ার্কার্স পার্টি

ঢাকা প্রতিবেদনঃ  গরীব ও নিমণ আয়ের মানুষকে বাঁচাতে অবিলম্বে দেশব্যাপী ন্যায্যমূল্যে পূর্ণ রেশনিং ব্যবস্থা চালু করতে হবে একই সাথে নিত্যপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। অন্যথায় বর্তমান সরকারের সকল অর্জন প্রশ্নের মুখে পড়বে। আর কদিন পরেই পবিত্র মাহে রমজান। বাংলাদেশের অধিকাংশ মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ রোজায় সাশ্রয়ীমূল্যে নিত্যপণ্য সামগ্রী ক্রয় করে যাতে পবিত্র রোজা রাখতে পারে সরকার তার ব্যবস্থা করবে। আমাদের অতীত অভিজ্ঞতায় বলে অসাধু আমলা-ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট তৈরি করে নিত্যপণ্য সামগ্রীর দাম কয়েক গুন বাড়িয়ে দেয় এতে করে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের অবর্ননীয় দুঃখ যন্ত্রণার শিকার হতে হয়। তাই সরকারকে এখনই এ ব্যাপারে তরিৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করে জনগণের দুঃখ-যন্ত্রণা লাঘব করবে।

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি আহুত দেশব্যাপী (১৩-২০ মার্চ) দ্রব্যমূল্য উর্ধ্বগতি প্রতিরোধ সপ্তাহ পালনের আহ্বান জানান। এ  উপলক্ষ্যে আজ ১৩ মার্চ রবিবার বিকাল ৩.৩০ মিনিটে ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা মহানগর আয়োজিত নিত্যপণ্য সামগ্রীর মূল্য উর্ধ্বগতি রোধ ও দেশব্যাপী পূর্ণ রেশনিং ব্যবস্থা চালুর দাবীতে এক বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। পার্টির তোপখানা রোডস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জমায়েত শেষে এক বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু হয়। বিক্ষোভ মিছিলটি পুরানা পল্টন হয়ে নূর হোসেন চত্বর ঘুড়ে প্রেসক্লাবে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর কমিটির সংগ্রামী সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড আবুল হোসাইন। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্টির পলিটব্যুরোর অন্যতম সদস্য কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক, কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য বিশিষ্ট শ্রমিক নেতা কমরেড আমিরুল হক আমিন। মহানগর সাধারণ সম্পাদক কমরেড কিশোর রায় সহ কেন্দ্রীয় ও নগর পার্টির নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক বলেন সরকারের দুর্নীতি, ভ্রান্তনীতি, অব্যবস্থাপনা ও অদক্ষতা কমিয়েই গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানি ও দ্রব্যমূল্য সাশ্রয়ী রাখা যায়। অথচ মানুষ যখন কোভিডকালের জীবিকার ক্ষতি সামলাচ্ছেন তখনই গ্যাস-বিদ্যুত-পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এদিকে নিত্যপণ্যের মূল্য লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে যাওয়াকে আন্তর্জাতিক বাজারের ঘাড়ে চাপিয়ে খালাস বাণিজ্যমন্ত্রী। অথচ আমদানী কর কমিয়েই সয়াবিনের দাম কম রাখা যায়। বাণিজ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, রমজানে এক কোটি মানুষকে কমদামে খাবার পৌঁছে দেবেন। এটা ভাল কথা. বাকী এগার মাস কি হবে?।

সর্বশেষ