30 C
Dhaka
শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১

অনলাইন টিভি

Bangladesh
1,549,553
কোভিড-১৯ সর্বমোট আক্রান্ত
Updated on September 25, 2021 4:45 AM
Homeজাতীয়রাষ্ট্রায়ত্ত পাট ও চিনিকল লুটপাটের যে কোন পদক্ষেপ প্রতিহত করা হবে

রাষ্ট্রায়ত্ত পাট ও চিনিকল লুটপাটের যে কোন পদক্ষেপ প্রতিহত করা হবে

সারাদেশে বিক্ষোভ ঢাকায় সংহতি সমাবেশ

নতুন কথা রিপোর্ট : আধুনিকায়ন করে পাটকল চালু, রাষ্ট্রায়ত্ত চিনিকল বন্ধ নয়Ñ আধুনিকায়ন ও বহুমুখীকরণ, বদলি শ্রমিকসহ সকলের বকেয়া পাওনা পরিশোধ, পিপিপি বা ব্যক্তিমালিকানার নামে লুটপাট বন্ধ, পাটচাষি-আখচাষি রক্ষা, বিরাষ্ট্রীয়করণ বাতিলের দাবিতে মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দেশব্যাপি বিক্ষোভ ও ঢাকায় সংহতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত রাষ্ট্রায়ত্ত পাট, চিনিকল লুটপাটের জন্য ব্যক্তিমালিকানায় তুলে দেওয়ার যে কোন সিদ্ধান্ত প্রতিহত করা হবে মর্মে হুসিয়ারি উচ্চারণ করেন নেতৃবৃন্দ।
দেশব্যাপি কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকাল ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত সংহতি সমাবেশে বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক এম.এম আকাশ বলেন, সংবিধানে তিন ধরণের মালিকানার কথা বলা আছে। তার মধ্যে রাষ্ট্রীয় খাত অন্যতম। আজ এই খাতকে দক্ষ ও দুর্নীতিমুক্ত ভাবে চালু না করে ব্যক্তিমালিকানায় দেওয়া মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে সাংঘর্ষিক। তিনি বলেন, দক্ষ শ্রমিকদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে আধুনিকায়নের মাধ্যমে পরিচালনা করা হলে রাষ্ট্রের জন্য লাভজনক।
সভাপতির বক্তব্যে প্রবীণ শ্রমিকনেতা সহিদুল্লাহ চৌধুরী বলেন, পুরনো প্রতিষ্ঠিত শিল্পপতিরা তাদের পাটকল চালাতে পারে নাই। ইতোমধ্যে ব্যক্তিমালিকানায় দেওয়া ৩৮টি পাটকলের মধ্যে মাত্র ৮টি চালু আছে। তাই ব্যক্তিমালিকানায় নতুন করে দিলে এইসকল মালিকরা চালাতে পারবেনা জেনেও জাতীয় সম্পদ লুটপাটের লক্ষ্য পুরনের পায়তারা করছে। তিনি আরও বলেন, একদিকে মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তি উদযাপন হচ্ছে ওপর দিকে লুটপাটের মহা উৎসবের অংশ হিসেবে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত রাষ্ট্রায়ত্ত খাতকে ব্যক্তিমালিকানায় তুলে দেওয়া হচ্ছে। শ্রমিক-কর্মচারিদের স্বার্থ এবং জাতীয় অর্থনৈতিক স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে কতিপয় প্রভাবশালী লুটেরা মালিকদের হাতে তুলে দেওয়ার নীলনক্সা বাস্তবায়নের অপচেষ্টা চলছে। তিনি সকল শ্রমিক-কর্মচারি ও দেশপ্রেমিক জনগণকে ঐক্যবদ্ধ তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
এছাড়াও রাজশাহি, খুলনা, চট্টগ্রাম, রংপুর, দিনাজপুর, জয়পুরহাট, নরসিংদী, ঝিনাইদহ ও ডেমরা সহ ২২টি জেলায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়। এসব কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন- সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক কামরূল আহসান, কৃষক নেতা মাহমুদুল হাসান মানিক, শ্রমিকনেতা আব্দুল কাদের হাওলাদার, আমিনুল হক আমিন, মাহবুব আলম, আবুল হোসাইন, শাহানা ফেরদৌসী লাকী প্রমুখ।
সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন-ক্ষেতমজুর নেতা ডা. ফজলুর রহমান, আইবিসি’র মহাসচিব কামরুল হাসান, আইনজীবি নেতা হাসান তারিক চৌধুরী সোহেল, লেখক ও কলামিষ্ট মাহা মির্জা প্রমুখ।
সংহতি সমাবেশ পরিচালনা করেন, সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক কিশোর রায় ও শরিফুজ্জামান শরিফ।

খুলনায় ষমাবেশ – নতুন কথা

লিজ নয়, আধুনিক রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল চালুর দাবি শ্রমিকদের

খুলনা :লিজ প্রথা নয়, আধুনিক করে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল চালুর দাবি জানিয়েছে জুট মিল শ্রমিকরা। একই সাথে তারা দৌলতপুর, খালিশপুর জুট মিলের বদলী ও স্থায়ী শ্রমিকদের বকেয়া পাওনা, শ্রমিকদের মামলা প্রত্যাহার চেয়েছেন।
গতকাল মঙ্গলবার সকালে খালিশপুর প্লাটিনাম জুটমিলের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তারা এসব কথা বলেন। পাট, সূতা, বস্ত্রকল শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদের খুলনা-যশোর আঞ্চলিক কমিটি এ কর্মসূচির আয়োজন করে।
পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন শ্রমিক নেতা মো. আলাউদ্দিন, ইউসুফ গাজী, আমিরুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, নূর ইসলাম, শফিকুল ইসরাম, মো. ইয়াসিন হোসেন, মো. হারুণ, জাহিদ হোসেন, মনির হোসেন, আবুল কালাম, সামসুদ্দিন প্রমুখ।

সর্বশেষ